সাতক্ষীরা প্রতিনিধিঃ সাতক্ষীরার শ্যামনগর সদরে অবস্থিত এম.আর.এ ক্লিনিকের কর্তৃব্যরত চিকিৎসকদের ভূল অপারেশনে রাফিফা নামে ০৮ বছরের এক কিশোরীর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

মঙ্গলবার (০৭ জুন) কালীগঞ্জ উপজেলার মৌতলা ইউনিয়নের রাণীতলা (পশ্চিম মৌতলা) গ্রামের মোঃ হাফিজুর রহমান এর কন্যা রাফিজা খাতুন। তার পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ‘গত মে মাসের ২৯ তারিখে শ্যামনগর এম.আর.এ ক্লিনিকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডাঃ মো. আনিছুর রহমান এই রোগীকে একটি পরীক্ষা দেন।

ডায়াগনস্টিক সেন্টার থেকে পরীক্ষা করার পর তার নিজস্ব ক্লিনিকে অপারেশন করার কথা বলেন। এরপর সোমবার (০৬ জুন) বিকাল ০৪ টায় অপারেশন করা হলেও যত সময় গড়াচ্ছে, রাফিজার শারিরীক অবস্থার অবনতি হতে থাকে। মাঝরাতে রাফিজার শরীর আর নড়াচড়া হচ্ছে না, তখন রোগীর স্বজনরা হাসপাতালের চিকিৎসকদের সাথে কথা বললে তারা বলেন, রোগী এখনও বেঁচে আছে। আপনারা দ্রুত সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান।

এরপর মঙ্গলবার (০৭ জুন) সকাল দুপুরে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তির জন্য নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে যাওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসকরা বলেন, এবং লিখিত পত্র দেন এই মর্মে, যে রাফিজা খাতুন গতকাল (০৬ জুন) রাতেই মারা গিয়েছিল এবং তার যে অপারেশন করার কথা ছিল, সেটিও ভূল অপারেশন হয়েছে।

এরপর দুপুরের পর রাফিজার পরিবার আইনী সহায়তার জন্য লাশটি শ্যামনগর থানায় নিয়ে যান।

এ বিষয়ে শ্যামনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) হাওলাদার সানওয়ার হোসেন মাসুম বলেন, একটা মেয়ে মারা গিয়েছে আমরা শুনেছি। যদি লাশের স্বজনরা আইনী সহায়তার জন্য আমাদের কাছে লিখিত অভিযোগ দেন, সেক্ষেত্রে আমরা তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহন করবো।