নীলাকাশ টুডেঃ সেনাপ্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ বলেছেন, সীমান্তে মিয়ানমারের সঙ্গে উত্তেজনায় সীমান্তরক্ষী বাহিনী নিয়োজিত আছে। যে কোনো প্রয়োজনে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রস্তুত রয়েছে। আন্তর্জাতিক শান্তি দিবস-২০২২ উদযাপন উপলক্ষে গতকাল বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক আয়োজিত ‘বিশ্বশান্তিতে বাংলাদেশের ভূমিকা’ শীর্ষক এক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। ওই সেমিনারে ‘বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠায় বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর ভূমিকা’ বিষয়ে সেনাপ্রধান এ কথা বলেন।

‘বিশ্বশান্তি সংরক্ষণে বাংলাদেশের কূটনৈতিক উদ্যোগের ৫০ বছর’ বিষয়ে বক্তব্য রাখেন সাবেক রাষ্ট্রদূত ও পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক। সেমিনারে আরও বক্তব্য রাখেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল আনোয়ার হোসেন, নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর আতিকুল ইসলাম।
সেনাপ্রধান বলেন, সীমান্তে মিয়ানমারের সঙ্গে উত্তেজনায় সীমান্তরক্ষী বাহিনী নিয়োজিত আছে। সব ধরনের ব্যবস্থা ইতোমধ্যে সম্পন্ন করা আছে।

প্রয়োজন অনুযায়ী যখন যা করতে হবে তার জন্য প্রস্তুত রয়েছে সেনাবাহিনী। সে লক্ষ্যে সেনাদের সঙ্গে যোগাযোগ অব্যাহত আছে। প্রধানমন্ত্রীকে সব হালনাগাদ তথ্য জানানো হচ্ছে। এ ব্যাপারে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর সঙ্গেও কথা হয়েছে বলে জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, উগ্রবাদী একটি গোষ্ঠী সীমান্তে উত্তেজনা সৃষ্টি করছে। মিয়ানমার সেনাবাহিনীর কোনো অংশগ্রহণ নেই এখানে। বাংলাদেশ মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রেখেছে। পরিস্থিতি বিবেচনায় সব পরিস্থিতির জন্য বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রস্তুত আছে। মিয়ানমারের সেনাবাহিনী এর সঙ্গে যুক্ত নয় বলেও জানিয়েছেন সেনাপ্রধান।