এসকে রায়হান, তালা (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধিঃ প্রেমের টানে ভারত থেকে বাংলাদেশে এসে বিয়ে করেছেন এক নারী। তার নাম বহ্নিশিখা ঘোষ ওরফে ফারজানা ইয়াসমিন (২৭)।

ফেসবুকে পরিচয়ের সুবাদে চার বছর প্রেমের পর কয়েক মাস আগে সাতক্ষীরার তালা উপজেলার জেঠুয়া গ্রামে আসেন ওই নারী। এরপর ওই গ্রামের রেজাউল ইসলাম আকুঞ্জির ছেলে ইব্রাহিম হোসেন মুন্নাকে (২৫) বিয়ে করেন। ওই দম্পতি বর্তমানে সুখে-শান্তিতে দিন কাটাচ্ছেন।

ফারজানা ইয়াসমিন জানান, তার বাবার নাম বিনয় কৃষ্ণ ঘোষ। তাদের বাড়ি কলকাতার ব্যারাকপুরের তালপুকুর এলাকায়। তিনি রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজিতে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেছেন। তিনি স্বেচ্ছায় ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন। নিজের চেয়ে কমবয়সী ছেলেকে বিয়ে করেও তিনি অনেক সুখে আছেন বলে জানান।

তিনি আরও জানান, পাসপোর্টের মাধ্যমে তিনি বাংলাদেশে আসেন। এফিডেভিট করে তার নাম রাখেন ফারজানা ইয়াসমিন। তিনি মুন্নাকে মুসলিম আইন অনুযায়ী বিয়ে করেন। স্থায়ীভাবে বাংলাদেশে থাকার জন্য আইনি প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। তবে ভারত থেকে তার বাবা ও পুলিশ কর্মকর্তা দুই মামা বিভিন্নভাবে তাকে হুমকি ধমকি দিচ্ছেন। এছাড়া বিয়ের দেড় মাস পর ভারতে গেলে তারা তাকে মারধর করে এবং গর্ভের সন্তান নষ্ট করে বলেও জানান ফারজানা।

ওই গৃহবধূ আরও জানান, স্থানীয় একটি মহলের সঙ্গে তার বাবার ভালো সম্পর্কের সুবাদে ওই মহলটি তাকে নানাভাবে হয়রানি করার চেষ্টা করছে। এ বিষয়ে তিনি বাংলাদেশের প্রশাসন ও স্থানীয়দের কাছে প্রতিকার চেয়েছেন।