নীলাকাশ টুডেঃ নাতিকে নিয়ে নাতনির বাড়িতে বেড়াতে গিয়েছিলেন নজরুল ইসলাম। বেড়ানো শেষে ব্যাটারিচালিত অটোভ্যানে চড়ে বাড়ি ফিরছিলেন তারা। এমন সময় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি আলুবোঝাই ট্রাক ভ্যানে ধাক্কায় দেয়। ভ্যান থেকে দাদা-নানি পড়ে গেলে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হন তারা। আর ঘটনাস্থলেই প্রাণ যায় দাদা-নাতির।

জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার মোলামগাড়ী- পাঁচশিরা সড়কের মহিরোম এলাকায় শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৬টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। কালাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম মঈনুদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিহতরা হলেন- কালাই উপজেলার পুনট ইউনিয়নের শিকটা উত্তরপাড়া গ্রামের মৃত অছির উদ্দিনের ছেলে নজরুল ইসলাম (৫৫) এবং একই গ্রামের মাহমুদুল হোসেনের ছেলে সাকিব হোসেন (৫)। নিহতরা সম্পর্কে দাদা-নাতি।

পুলিশ ও প্রত্যেক্ষদর্শীরা জানান, নজরুল ও তার নাতি ব্যাটারিচালিত অটোভ্যানে চড়ে যাচ্ছিলেন। তাদের বিপরীত দিক থেকে আসা একটি আলুবোঝাই ট্রাক ভ্যানে ধাক্কায় দেয়। এতে তারা দুজন ভ্যান থেকে পড়ে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান। এ সময় দাদার মরদেহ মাথা থেঁতলানো অবস্থায় সড়কে পড়েছিল, আর নাতি পেট ফেটে যাওয়া অবস্থায় দাদার কোলে পড়েছিল।

পুনট ইউনিয়নের স্থানীয় মেম্বার মোর্শেদুল হক বলেন, নজরুল ইসলাম তার নাতি সাকিবকে নিয়ে বগুড়া জেলার দুপচাঁচিয়া উপজেলার ধাপেরহাট এলাকায় নাতনির বাড়িতে বেড়াতে গিয়েছিল। সেখান থেকে ফেরার পথে দুর্ঘটনায় তারা মারা যান।

 

ওসি এসএম মঈনুদ্দীন বলেন, দুর্ঘটনার পর আলুবোঝাই ট্রাকটির চালক ও সহকারী ট্রাক রেখে পালিয়ে গেছেন। ট্রাকটি জব্দ করে থানায় রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় ভ্যানচালক ও ভ্যানের আরেক যাত্রী সামান্য আহত হয়েছেন। তারা চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন।